মানুষ মমতার সঙ্গেই, তাঁরাই জবাব দেবেন বিজেপিকেঃ পার্থ

হিয়া রায়

ঝাড়গ্রাম জেলাজুড়ে আরও উন্নয়ন কর্মসূচির সূচনা করলেন রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। লালগড়ের রামগড় এবং ঝাড়গামে একগুচ্ছ প্রকল্পের উদ্বোধন করেন তিনি। ঝাড়গ্রাম জেলার লালগড়ের রামগড়ে জেলা শিক্ষা এবং প্রশিক্ষণ সংস্থার (ডায়েট) দ্বিতীয় ক্যাম্পাসের দ্বারোদঘাটন করেন। উদ্বোধন করে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, “রাজ্যে সাঁওতালি ভাষায় ২৮৪ জন শিক্ষক নেওয়া হবে। বাংলার পাশাপাশি যাতে সাঁওতালি ভাষাতেও প্রশিক্ষণ করানো যায়, তার জন্য চিন্তা ভাবনা করা হবে। নতুন নতুন কিছু লোক এখানে শান্তি, সংহতি বিঘ্নিত করার চেষ্টা করছে। সবাইকে নিয়ে ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে।” রামগড়ের উদ্বোধনের পর পার্থবাবু ঝাড়গ্রামে বীরসা মুন্ডা, সিধু-কানহু এবং স্বামী বিবেকানন্দের মূর্তির আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন।

মূর্তি উদ্বোধনের পর তিনি চলে যান ঝাড়গ্রাম জেলাশাসকের দফতর সংলগ্ন সিধু,কানহু হলে। সেখানে “হাউজ ফর অল’ এবং শবর মহিলাদের নিয়ে জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে তৈরি মহিলা স্বনির্ভর গোষ্ঠীগুলিকে আর্থিক সহায়তা প্রদান করা হয়। এই প্রকল্পে যাঁরা বাড়ি পাবেন, তাঁদের হাতে শংসাপত্র তুলে দেওয়া হয়। এছাড়া অনুষ্ঠান মঞ্চ থেকে ১০০ জন উপভোক্তার হাতে শংসাপত্র তুলে দেওয়া হয়। সঙ্গে ১২১টি শবর মহিলা স্বনির্ভর গোষ্ঠীকে এক লক্ষ টাকা করে সাহায্য করা হয়। উপস্থিত ছিলেন ঝাড়গ্রাম জেলা পরিষদের সভাধিপতি মাধবী বিশ্বাস, সাংসদ উমা সোরেন, বিধায়ক সুকুমার হাঁসদা, চূড়ামণি মাহাতো, দুলাল মুর্মু, জেলাশাসক আয়েষা রানি, ঝাড়গ্রাম রামকৃষ্ণ মিশন আশ্রমের সাধারণ সম্পাদক স্বামী শুভঙ্করানন্দ প্রমুখ।

অন্যদিকে, বিজেপি রাজ্যে অশান্তি বাধিয়ে বিভাজনের চেষ্টা করছে বলে মন্তব্য করেন তৃণমূল কংগ্রেসের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায়। তাঁর বক্তব্য, “মানুষ উন্নয়নের সঙ্গে আছেন। মানুষ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পাশে আছেন। মানুষের পাশে থাকেন, মানুষের জন্য কাজ করেন। বিজেপি আচ্ছে দিনের বদলে কালো দিন এনেছে। আর আচ্ছে দিনের দরকার নেই, আমাদের বাঁচতে দিন।”

পাশপাশি লোকসভা নির্বাচনের আগে দলের সংগঠনকে আরও মজবুত করার কাজে ঝাঁপিয়ে পড়ল তৃণমূল কংগ্রেস। ৪২টি আসনের মধ্যে সবক’টিতেই মানুষের আশীর্বাদ নিয়ে যাতে দলীয় প্রার্থীরা জয়ী হন, তার জন্য সংগঠনের উপরই বেশি জোর দিয়েছেন দলীয় নেতৃত্ব। ছাত্র, যুবরা দলের একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ। জেলার সংগঠনকে মজবুত করতে দলের যুব এবং ছাত্র সংগঠনকে বিশেষ দায়িত্ব দিয়েছেন দলের মহাসচিব তথা শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্ট্রোপাধ্যায়। ঝাড়গ্রাম জেলা সফরে যান তিনি। সেখানে জেলা নেতৃত্বের সঙ্গে বৈঠক করেন তিনি। জননেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বাংলার মানুষের জন্য একাধিক প্রকল্প নিয়েছেন। সেগুলির সুফল যাতে মানুষ পান, সেদিকে দৃষ্টি দিতেই নির্দেশ দিয়েছেন পার্থবাবু। লোকসভা ভোটে জেলার ৭৯টি গ্রাম পঞ্চায়েতের ১০৮৩ বুথে দলীয় সংগঠনকে আরও শক্তিশালী করার কথা বলেছেন তিনি। প্রতিটি বুথ থেকে পাঁচজন করে যুব, ছাত্রদের নিয়ে একটি সম্মেলন করার কথা বলেন তিনি।

 

 

 

This post is also available in: Bangla

Subscribe to Jagobangla

Get the hottest news,
fresh off the rack,
delivered to your mailbox.

652k Subscribers

Social media & sharing icons powered by UltimatelySocial