বিপদ আলসার

ডাঃ শান্তনু সেন

খাওয়ার দোষে পেটের যে পাঁচটা অসুখ অহরহ দেখা যায়, সেগুলো হল অম্বল বা আলসার, ডায়রিয়া, জন্ডিস, কোষ্ঠকাঠিন্য আর গলব্লাডার। অম্বল হল পাকস্থলীতে অতিরিক্ত হাইড্রোক্লোরিক অ্যাসিড ক্ষরণের ফল। একটানা অনিবার্ধভাবেই কমতে থাকে পাকস্থলির মিউকাস মেমবেনের প্রতিরোধ ক্ষমতা, ফলে সেখানে ক্ষতি হয়, তাকে বলে গ্যাসটিক আলসার। স্বাভাবিকের তুলনায় বেশি হাইড্রোক্লোরিক আ্যাসিভ ক্ষরিত হয় মূলত খাওয়ার দোষেই। অনিয়মিত খাওয়া-দাওয়ার পরিবর্তে নিয়মিত বারবার খাওয়ার অভ্যাস। অনিয়মিত খাওয়া-দাওয়া অম্বল বা গ্যাসট্রিক আলসার বাধাতে যথেষ্ট সাহায্য করে। আসলে, কম বেশি আমাদের সকলেরই বাঁধাধরা একটা খাওয়ার সময় আছে। সময়ের হিসাবে সেটা ৭টা, ১০টা, ১টা, ৫টা, ৯টা বা একটু অন্যরকমও হতে পারে। যিনি যে সময়ে খান, তার শরীরে রাসায়নিক ঘড়িটাও তেমনভাবে চলতে থাকে। খাওয়ার পরে খাবার হজম করার জন্য পাচকরস হাইড্রোক্লোরিক অ্যাসিডও ক্ষরিত হয় সেইভাবে। তাই কোনও গ্যাসট্রিক আলসারের রোগী যদি নিয়মিত একই সময়ে খাওয়া শেষ করেন তাহলে জৈবিক ঘড়ির নিয়ম মেনে এই সময় পাচকরস নিঃসৃত হবে, হজমও ঠিকমতো হবে।

 অতিরিক্ত তেল-ঝাল

অতিরিক্ত তেল-ঝাল-মশলাযুক্ত খাবার খাওয়ার ফলে পাকস্থলীতে হাইড্রোক্লোরিক আসিডের ক্ষরণ বেড়ে যায়। বাড়ে গ্যাসট্রিক আলসারের সম্ভাবনা। তাই নিয়মিত খাওয়া-দাওয়া করুন সাধারণ সহজপাচ্য হাক্কা খাবার দিয়ে।

মদ্যপান, ধূমপান

পানীয়তেও বিপদ রয়েছে। কারণ, আাসিডের ক্ষরণ বাড়িয়ে দেওয়ার জন্য এরাও দায়ী। তাই সঠিক খাদ্যাভাসের মধ্যে মদ্যপান, ধূমপান বন্ধ করাও একটা বিশেষ দরকার। কথায় কথায় ব্যথার ওষুধ যেমন ডিসপ্রিন, ব্রুফেন, স্টেরয়েড ইত্যাদি খাওয়ার ফলে অম্বল, অ্যাসিড হতে পারে। আলসার আক্রান্ত রোগীদের কখনওই এইসব ওষুধ খাওয়া উচিত নয়।

একজন আলসারের রোগী তিন ঘণ্টা পর পর কিছু খাবেন। তার মধ্যে তিনবার পেট ভরে খাওয়া অবশ্যই দরকার। আলসার মানেই মাপা খাবার নয়। সব কিছুই খাবে। কিন্তু অতিরিক্ত তেল, মশলা, ঝাল নয়। তার সঙ্গে ভাজা খাবার, চপ, কাটলেট খাওয়া বন্ধ করতে হবে। আলসারে ঠান্ডা দুধ খাওয়া যেতে পারে।

ভুরিভোজের পর যারা আ্যান্টাসিডের মতো ওষুধ খাওয়ার পক্ষপাতী নন, কিন্তু সোডা বা ঠান্ডা পানীয়র বোতল হাতে নিতে পছন্দ করেন। এসব খেয়ে ঢেকুর তুলে, সাময়িক স্বস্তি পেলেও এগুলি আদতে পাকস্থলীতে আযসিডের ক্ষরণ বাড়িয়ে দেয়। তাই অতিরিক্ত খাওয়া হয়ে গেলে হাটাহাটি করুন, চিকিৎসকের দেওয়া কোনও ওষুধ থাকলে তাই খান। খাওয়ার পরেই শুয়ে পড়বেন না। আলসার অন্বল রোগীদের চা-কফি খাওয়া একেবারে কমিয়ে দিতে হবে। এগুলি পাকস্থলীতে হাইড্রোক্লোরিক আসিডের ক্ষরণ বাড়িয়ে দেয়। ফলে সমস্যা কমে না, বাড়িয়ে দেয়। এরকমভাবে দৈনন্দিন জীবন অভ্যাস করতে পারলে অবশ্যই আলসারের রোগী ভাল থাকবেন। তবে, গ্যাসট্রিক আলসার ফেলে রাখবেন না। অবহেলায় ফেলে রাখলে দেখা দেয় নানা জটিলতা । তাই চিকিৎসকের সঙ্গে পরামর্শ করুন।

একজন গ্যাসট্রিক আলসার-ক্রনিক অম্বলের রোগীর উচিত

সকাল ৬.৩০ মিনি—দুধ সহ হাল্কা চা অথবা হরলিক্স, দুটো বিস্কুট।

সকাল ৮.৩০ মিনিট—টক দই, মুড়ি, খই ১ বাটি অথবা সেদ্ধ চাউমিন, আধ কাপ দুধ, ১টা ডিম সেদ্ধ।

সকাল ১০.৩০ মিনিট- পাকা ফল আপেল (খোসা ছাড়ানো) ১টা পাকা পেঁপে ১০০ গ্রাম/ তরমুজ ৫-৬ টুকরো।

দুপুর ১২.৩০ মিনিট—ভাত দেড় বাটি, পাতলা ডাল ১ বাটি, (ছোলার রাজমা-তড়কা-মটর বাদ দিয়ে) অল্প তেল মশলায় রান্না করা সবজি (এর মধ্যে ফুলকপি, কড়াইশুটি, বাঁধাকপি, বিট, টমাটো, বরবটি বাদ দিয়ে) মাছ ৭০ গ্রাম অথবা মুরগির স্টু। কাঁচা স্যালাড না খাওয়াই ভাল।

বিকাল ৪টে—১ কাপ দুধ অথবা দুধ-সহ হাল্কা চা, বিস্কুট দুটো।

সন্ধ্যা ৬.৩০—পাতলা সুজি, ছানা, মুড়ি।

রাত ৯.৩০ মিনিট—ভাত, রুটি খেলে ময়দার রুটি, পাতলা ডাল আধ বাটি, স্টু জাতীয় সবজি ১ বাটি, কচি মুরগির পাতলা স্টু, চারা মাছ।

গ্যাসট্রাইটিস বা আলসারের খাদ্য গ্রহণের ক্ষেত্রে নিম্নলিখিত বিষয়গুলির উপর নজর রাখা দরকার—

  • প্রতি তিন ঘণ্টা অন্তর খাদ্য গ্রহণ।
  • অতিরিক্ত গরম বা অতিরিক্ত ঠান্ডা খাবার খাওয়া উচিত নয়।
  • বার বার অল্প পরিমাণে খাদ্য গ্রহণ।

এই রোগের রোগীদের যা যা খাওয়া অনুচিত—

  • ধূমপান
  • অ্যালকোহল
  • অতিরিক্ত চা-কফি
  • লঙ্কা বা ঝাল খাদ্য
  • টক খাবার ও টক ফল
  • পাঁঠা বা মুরগির স্যুপ
  • আচার, পাঁপড়, চাটনি
  • ভাজা খাবার।
  • আদা, পিঁয়াজ, ধনে, জিরে, গরম মশলা।
  • ফাইবার যুক্ত সবজি (যেমন ফুলকপি, বাঁধাকপি, শসা, বরবটি, বিট, টমাটো)।

একজন আলসারের রোগীকে মনে রাখতে হবে, যখন তখন অ্যান্টাসিড খাওয়া একেবারেই উচিত নয়। সাময়িক স্বস্তি মিললেও, এর যথেচ্ছ ব্যবহারে মারাত্মক ক্ষতি হতে পারে। যদি খেতেই হয় চিকিৎসকের পরামর্শ মতো খেতে পারেন নিয়ম করে। আর খালি পেটে অম্বল হলে, অ্যান্টাসিড খাওয়ার মানে হয় না, তখন কিছু খাবার খেয়ে নিন। ভাল থাকবেন।

This post is also available in: English

Subscribe to Jagobangla

Get the hottest news,
fresh off the rack,
delivered to your mailbox.

652k Subscribers

Social media & sharing icons powered by UltimatelySocial