জওয়ানদের পরিবারের পাশে থাকবে সরকার, কুর্নিশ জানালেন মমতা

শঙ্খ রায়

প্রত্যাঘাত দিয়েছে ভারত। কিছুটা স্বস্তি মিলেছে পুলওয়ামার জওয়ানদের বলিদানের। যার জন্য ভারতীয় বায়ুসেনার বীর বিক্রমকে কুর্নিশ জানালেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। একই সঙ্গে জানিয়ে দিলেন নিহত জওয়ানদের পরিবারের পাশে আছে তাঁর সরকার।

ইতিমধ্যে দেশজুড়ে পাকিস্তানকে প্রত্যাঘাত দেওয়ার জন্য ফুঁসছিল প্রত্যেক ভারতবাসী। জওয়ানদের শ্রদ্ধা জানাতে যে যেভাবে পারে, সেভাবেই কৃতজ্ঞতা জানাতে চাইছিল। তার মধ্যে দেশের ঐক্যের কথা বলে ভারতের জওয়ানদের রক্ষার কথা বলে তাঁদের পাশে দাঁড়ালেন জননেত্রী।

এর মধ্যেই এ রাজ্যে কাশ্মীরের মানুষদের নিরাপত্তাও নিশ্চিত করেছে রাজ্য সরকার। তা নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী বলেছেন, “কোনও ভেদাভেদের রাজনীতিতে আমরা বিশ্বাস করি না। ভেদাভেদের সংস্কৃতি, ভেদাভেদের সংকীর্ণ মনোবৃত্তি বিশ্বাস করি না। আমরা মনে করি কাশ্মীর থেকে কন্যাকুমারী, বিন্ধ্য পর্বত থেকে দ্বারকা, ত্রিপুরা থেকে বাংলা, উত্তরপ্রদেশ থেকে অসম সর্বত্র সব মানুষ ভাল থাক। মানুষ ভাল থাকলে দেশ ভাল থাকে। শান্তি থাকে। পরিবার ভাল থাকে। সমাজ ভাল থাকে।’’ তাঁর কথায়, “আমরা ইউনাইটেড ইন্ডিয়াকে সম্মান করি, খন্ডিত ভারতবর্ষকে নয়।’’

অন্যদিকে, দিল্লীতে বিরোধী শিবিরের বৈঠক থেকে সেনা জওয়ানদের কুর্নিশ জানানো হয়। একুশটি রাজনৈতিক দল বুধবার প্রায় তিন ঘন্টা নিজেদের মধ্যে বৈঠক করার পর এক যৌথ বিবৃতিতে সেনা জওয়ানদের আত্মত্যাগকে কুর্নিশ জানায়।

দেশের জওয়ানদের এই বলিদানকে সম্মান জানিয়ে তা নিয়ে রাজনীতি না করারও আহ্বান জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। জানিয়েছেন, “দেশের জন্য প্রাণ দিচ্ছেন জওয়ানরা। আর সেটা নিয়ে রাজনীতি হচ্ছে। এই বিরুদ্ধে স্ট্রং প্রতিবাদ হওয়া দরকার। সবাই মিলে প্রতিবাদ করুন।’’ তার মধ্যেই দেশের নিরাপত্তায়, জওয়ানদের নিরাপত্তায় বাড়তি সুরক্ষা নেওয়ার আবেদন করেছেন। বলেছেন, জাতীয় নিরাপত্তা নিয়ে কোনও আপস যেন না করা হয়। কোনওরকম পরিস্থিতিতেই তা সহ্য করা যায় না। দেশের নিরাপত্তার স্বার্থে সবরকম দরকারের পাশে আছে বিরোধীরা বলে জানানো হয়েছে। দেশের জওয়ানদের বলিদান কোনওভাবে ব্যর্থ হতে দিতে নারাজ তারা।

This post is also available in: English

Subscribe to Jagobangla

Get the hottest news,
fresh off the rack,
delivered to your mailbox.

652k Subscribers